Daily Bangladesh Mirror

ঢাকা, বুধবার, জুলাই ১৭, ২০২৪, ২ শ্রাবণ ১৪৩১

স্বাস্থ্য

মস্তিষ্ককে সুস্থ রাখতে দিনে অল্প ঘুমান

ডেস্ক রিপোর্ট:
১৯ দিন আগে বুধবার, জুলাই ১৭, ২০২৪
# ফাইল ফটো

নিয়মিত দিনের বেলায় অল্প সময়ের ঘুমের অভ্যাস মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যকে সুরক্ষিত রাখতে পারে বলে এক গবেষণায় দেখা গেছে।

বয়স বাড়ার সাথে সাথে মানুষের মস্তিষ্কের আয়তনের যে সংকোচন হয়, অল্প সময়ের ঘুম এ সংকোচন প্রক্রিয়াকে বিলম্বিত করতে পারে বলে জানিয়েছেন গবেষকরা।

গবেষণায় দেখা গেছে, দীর্ঘ ঘুম আলঝেইমার রোগের প্রাথমিক লক্ষণ হতে পারে। তবে, সংক্ষিপ্ত ঘুম মানুষের শেখার ক্ষমতা বাড়াতে পারে।

গবেষক

দলটি জানায়, বয়স বাড়ার সাথে সাথে মস্তিষ্কের সংকোচন ঘটে। কগনিটিভ সমস্যা এবং নিউরোডিজেনারেটিভ রোগে আক্রান্তদের মধ্যে মস্তিষ্কের সংকোচন আরও ত্বরান্বিত হয়।

গবেষকরা একটি নোটে বলছেন, 'গবেষণা থেকে আমরা মস্তিষ্কের আয়তন বড় হওয়ার সঙ্গে দিনের বেলায় নিয়মিত ঘুমের একটি সম্পর্ক খুঁজে পেয়েছি। এর থেকে বোঝা যায় ঘুমের ক্ষতি পুষিয়ে দিতে নিয়মিত সংক্ষিপ্ত ঘুম নিউরোডিজেনারেশনের বিরুদ্ধে কিছু সুরক্ষা দেয়।'

ইউনিভার্সিটি কলেজ লন্ডনের (ইউসিএল) এবং ইউনিভার্সিটি অফ দ্য রিপাবলিক ইন উরুগুয়ের এই গবেষকরা স্লিপ হেলথ জার্নালে জানান, তারা ইউকে বায়োস্টাডি থেকে গবেষণাটির তথ্য সংগ্রহ করেন। এখান থেকে তারা ৪০-৬৯ বছর বয়সী ৫ লাখ লোকের জেনেটিক, লাইফস্টাইল এবং স্বাস্থ্য সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করেন।

গবেষক দলটি ৩৫ হাজার ৮০ জন বায়োব্যাঙ্ক অংশগ্রহণকারীদের ডেটা বিশ্লেষণ করে দেখেন যে একটি নির্দিষ্ট জেনেটিক ভ্যারিয়েন্ট এবং দিনের বেলা নিয়মিত ঘুমের সাথে মস্তিষ্কের আকার, জ্ঞান এবং মস্তিষ্কের স্বাস্থ্যের অন্যান্য দিকগুলো যুক্ত।

ঘুমানোর সাথে সম্পর্কিত জেনেটিক ভ্যারিয়েন্টগুলো জন্মের সময় নির্ধারিত হয় এবং এলোমেলোভাবেই নির্ধারিত হয়। গবেষণাটির মাধ্যমে গবেষকরা ধূমপান বা শারীরিক কার্যকলাপের মতো জীবনযাত্রার ফলে সৃষ্ট প্রভাবগুলোকেও বাদ দেয়, যেগুলো ঘুমানোর অভ্যাস এবং মস্তিষ্কের স্বাস্থ্য উভয়কেই প্রভাবিত করতে পারে।

সামগ্রিকভাবে গবেষক দলটি একটি নির্দিষ্ট জেনেটিক ভ্যারিয়েন্টের লোকেদের দিনের বেলা নিয়মিত সংক্ষিপ্ত ঘুমের প্রবণতার সাথে মস্তিষ্কের বেশি আয়তনের একটি সম্পর্ক খুঁজে পেয়েছেন। বয়স বৃদ্ধির সাথে সাথে এই আয়তন কমতে থাকে। তবে যারা দিনের বেলা নিয়মিত সংক্ষিপ্ত ঘুম দিয়ে থাকেন, তাদের ক্ষেত্রে এই পরিমাণ ২.৬-৬.৫ বছরের কম বয়সের সমতুল্য হয়। যদিও এর সাথে জ্ঞানগত কর্মক্ষমতার কোনো সম্পর্ক ছিল না।

আগের বিভিন্ন গবেষণা অনুসারে, ৩০ মিনিটের সংক্ষিপ্ত ঘুম বেশ উপকারী হতে পারে।

এছাড়া, গবেষণাটি শুধু শ্বেতাঙ্গ ব্রিটিশ নাগরিকদের তথ্যের ওপর ভিত্তি করে পরিচালিত হয়েছে। যেখানে মস্তিষ্কের এই উপকার পেতে ঠিক কতটুকু ঘুমাতে হবে তার সময়কাল স্পষ্ট না। এছাড়া, ঘুমানোর একই সুবিধাগুলো জেনেটিক বৈশিষ্ট্যগুলো ছাড়া মানুষের মধ্যে দেখা যাবে কি না, সেটিও স্পষ্ট না।

১৯ দিন আগে বুধবার, জুলাই ১৭, ২০২৪

ইউটিউব সাবস্ক্রাইব করুন